প্রাইজবন্ড আপনার, ফলাফল মিলিয়ে দেওয়ার দায়িত্ব আমাদের।

Get Started
Prize Bond
Prize Bond

প্রাইজবন্ড নাম্বার সংরক্ষণ করা যবে

Prize Bond

বিজয়ী হলে এস.এম.এস ও ই-মেইলের মাধ্যমে জানা যাবে

Prize Bond

প্রাইজবন্ড ক্রয় বিক্রয় করা যাবে

Automated Prize Bond Checker

"পরবর্তী ড্রর ফলাফল মোবাইলে এস এম এস এর মাধ্যমে পেতে চাইলে সাইন আপ করে নাম্বারগুলো সংরক্ষণ করতে হবে।"

Prize Bond

প্রাচুর্য ডট কম কি?

  • প্রাচুর্য ডট কম একটি অটোমেটেড সিস্টেমে প্রাইজবন্ড চেকার।
  • এখানে যেকোনো বাংলাদেশি জনগণ তার প্রাইজবন্ডের নাম্বার সংরক্ষণ করতে পারবেন।
  • ২০ বছর পূর্বের যেকোনো "ড্র"র ফলাফলের সাথে নিজের প্রাইজবন্ডের নাম্বার মিলিয়ে দেখা যাবে।
  • বিজয়ী হলে এস.এম.এস ও ই-মেইল এর মাধ্যমে জানা যাবে।
  • প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে জনসাধারণকে সেবা প্রদানের মাধ্যমে সরকারের একটি অন্যতম সেক্টর প্রাইজবন্ড এর সুফল সবার মাঝে পৌঁছে দেয়া হয়।

প্রাইজবন্ড সম্পর্কিত যত আলোচনা

পেইড সাবস্ক্রিপশন

Subs_Prachurja

ফ্রি প্যাকেজ

সর্বোচ্চ ৫টি প্রাইজবন্ড এন্ট্রি করা যাবে।

মিনি

চার্জঃ ৬০ টাকা ৫০ টাকা
এন্ট্রি লিমিটঃ ১৫টি
(ফ্রি সহ ৫+১০=১৫)
মেয়াদঃ লাইফটাইম

Subscribe Now

অতি সাধারণ

সার্ভিস চার্জ ঃ ১৩০ টাকা
এন্ট্রি লিমিট ঃ ৩৫টি
(ফ্রি সহ ৫+৩০=৩৫)
মেয়াদঃ লাইফটাইম

Subscribe Now

সাধারণ

সার্ভিস চার্জঃ ২২০ টাকা
এন্ট্রি লিমিটঃ ৬০টি
(ফ্রি সহ ৫+৫৫=৬০)
মেয়াদঃ লাইফটাইম

Subscribe Now

ব্রোঞ্জ

সার্ভিস চার্জঃ ৩৫০ টাকা
এন্ট্রি লিমিটঃ ১০০টি
(ফ্রি সহ ৫+৯৫=১০০)
মেয়াদঃ লাইফটাইম

Subscribe Now

সিলভার

সার্ভিস চার্জঃ ৬৫০ টাকা
এন্ট্রি লিমিটঃ ২০০টি
(ফ্রি সহ ৫+১৯৫=২০০)
মেয়াদঃ লাইফটাইম

Subscribe Now

কপার

চার্জঃ ১,০০০ টাকা
এন্ট্রি লিমিটঃ ৩৪০টি
(ফ্রি সহ)
মেয়াদঃ লাইফটাইম

Subscribe Now

গোল্ড

চার্জঃ ১,৩০০ টাকা
এন্ট্রি লিমিটঃ ৫০০টি
(ফ্রি সহ)
মেয়াদঃ লাইফটাইম

Subscribe Now

প্লাটিনাম

চার্জঃ ১,৭০০ টাকা
এন্ট্রি লিমিটঃ ৮০০টি
(ফ্রি সহ)
মেয়াদঃ লাইফটাইম

Subscribe Now

সুপার প্লাটিনাম

চার্জঃ ২,৮০০ টাকা
এন্ট্রি লিমিটঃ ১,৫০০টি
মেয়াদঃ লাইফটাইম

Subscribe Now

ডায়ামন্ড

চার্জঃ ৩,৫০০ টাকা
এন্ট্রি লিমিটঃ ২,৫০০টি
মেয়াদঃ লাইফটাইম

Subscribe Now

সুপার ডায়ামন্ড

চার্জঃ ৪,৮০০ টাকা
এন্ট্রি লিমিটঃ ৪,০০০টি
মেয়াদঃ লাইফটাইম

Subscribe Now

সুপার সেভার

চার্জঃ ৬,০০০ টাকা
এন্ট্রি লিমিটঃ ৬,৫০০টি
মেয়াদঃ লাইফটাইম

Subscribe Now

আনলিমিটেড

চার্জঃ ৮,০০০ টাকা
এন্ট্রি লিমিটঃ ১০,০০০টি
মেয়াদঃ লাইফটাইম

Subscribe Now

সুপার অন-লিমিটেড

চার্জঃ ১২,০০০ টাকা
এন্ট্রি লিমিটঃ ২০,০০০টি
মেয়াদঃ লাইফটাইম

Subscribe Now

প্রাচুর্য ডট কম ব্যবহার করার জন্য
গাইড লাইন

Uses Prachurja
  • Plot-19, Road -19, Sector-14, Uttara, Dhaka

আমাদের সাথে যোগাযোগ

Contact Prachurja

আমাদের কাছে সবচেয়ে বেশি যে প্রশ্ন করে ই-মেইল আসে তার উত্তর

সরকারি গেজেট অনুযায়ী যে-সব অফিসে প্রাইজবন্ড পাওয়া যায় সেগুলো হল:
১। বাংলাদেশ ব্যাংকের সকল শাখা অফিসে প্রাইজবন্ড পাওয়া যায়।
২। সরকারি বেসরকারি সব ধরনের বাণিজ্যিক ব্যাংকের সব শাখা অফিসে প্রাইজবন্ড পাওয়া যায়। তবে ইসলামি শরিয়াভিত্তিক পরিচালিত ব্যাংক সমূহে প্রাইজবন্ড পাওয়া যায় না।
৩। জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তরের অধীন সারাদেশে ৭১টি সঞ্চয় ব্যুরো অফিসে প্রাইজবন্ড পাওয়া যায়।
৪। এবং পোস্ট অফিসে ১০০ টাকা মূল্যমানের প্রাইজবন্ড পাওয়া যায়।
তবে সব সময় সব ব্যাংকের সব শাখা অফিসে প্রাইজবন্ড নাও পাওয়া যেতে পারে।
  • আপনি যদি অল্প সংখ্যক যেমন ১০০/২০০ বা ৫০০টি প্রাইজবন্ড সংগ্রহ করতে চান এবং আপনার নিকটস্থ বাংলাদেশ ব্যাংকের কোন শাখা না থাকে, তাহলে আপনাকে এক ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকে ঘুরে ঘুরে একটু কষ্ট সহ্য করে প্রাইজবন্ড সংগ্রহ করতে হবে।
  • আপনি যদি বেশি অল্প সংখ্যক যেমন ১০০০/২০০০ বা ৫০০০টি প্রাইজবন্ড সংগ্রহ করতে চান, তাহলে এক ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকে ঘুরে ঘুরে প্রাইজবন্ড সংগ্রহ করা, অনেক কষ্টসাধ্য ও সময় সাপেক্ষ কাজ।
  • তাহলে সমাধান কি? প্রবলেম যত বড়ই হোক না কেন, সমাধান কিন্তু ছোটই থাকে, সেজন্য কৌশল জানতে হয়।
    সারাদেশে বাংলাদেশ ব্যাংকের ১০টি শাখা অফিস আছে, এই সব অফিস থেকে সারা বছর এবং সব সময় যেকোনো পরিমাণের প্রাইজবন্ড কেনা যায়।
    প্রাইজবন্ড লটারির মতো হলেও কিন্তু লটারি না। লটারির ক্ষেত্রে একবার ”ড্র” হয়ে গেলে ঐটার মেয়াদ চলে যায় এবং টিকেটের মূল্যও থাকেনা। লটারিতে জয়ী না হলে পুরো টাকাটাই লস। এদিকে প্রাইজবন্ড এর ”ড্র” হয়ে যাওয়ার পরও এর মেয়াদ শেষ হয় না। পরবর্তী ”ড্র” এর সময়ও এর মেয়াদ থাকে। অর্থাৎ প্রাইজবন্ডের মেয়াদ শেষ হয় না। আর সবচেয়ে মজার বিষয় হল প্রাইজবন্ড এর কয়েকবার ”ড্র” হওয়ার পরও, চাইলে সেগুলো ভাঙ্গিয়ে আবার টাকা নিয়ে আসা যায়।
    আমাদের সার্ভিস চার্জ এককালীন। প্রতি বছর কোন প্রকার রিনিউ করার প্রয়োজন নাই। সুতরাং প্রাইজবন্ড এন্ট্রি করার পর সবকিছু ভুলে যান, প্রয়োজনে আমরা আপনাকে স্মরণ করে দিবো। থাকুন টেনশন ফ্রি।
    প্যাকেজ আপগ্রেড সিস্টেম হলো ছোট একটা প্যাকেজ সাবস্ক্রাইব করা থাকলে পরবর্তীতে বড় প্যাকেজে কনভার্ট করা। প্যাকেজ আপগ্রেড করার সময় স্বয়ংক্রিয়ভাবে নতুন প্যাকেজের মূল্য থেকে পূর্ববর্তী প্যাকেজের মূল্য বাদ দিয়ে সমন্বয় করা হয়।
    উদাহরণ ঃ আপনি প্রথমে ১৩০ টাকায় অতি সাধারণ প্যাকেজ সাবস্ক্রাইব করেছেন, আরো নতুন কিছু প্রাইজবন্ড ক্রয় করাতে অতি সাধারণ প্যাকেজের লিমিট পার হয়ে যাচ্ছে। তখন ৩৫০ টাকার ব্রোঞ্জ কেনার সিদ্ধান্ত নিলেন। প্যাকেজ আপগ্রেড সিস্টেম এই ক্ষেত্রে কাজ করবে। প্যাকেজ আপগ্রেড অপশনে গিয়ে (৩৫০-১৩০) = ২২০ টাকা পেমেন্ট করলেই, আপনার অতি সাধারণ প্যাকেজটি ব্রোঞ্জ প্যাকেজে কনভার্ট হয়ে যাবে।
    হ্যাঁ। আমাদের মোবাইল অ্যাপস আছে। জানুয়ারি ২০২৩ সালের শুরুতে পাবলিশ করা হয়েছে। Only Android Version Available. গুগল প্লে স্টোরে গিয়ে Prachurja.com বা Prachurja নামে সার্চ দিলে চলে আসবে। , আমাদের মোবাইল অ্যাপসের লিঙ্ক
    সর্ব সাধারণের জন্য আমাদের বেসিক সার্ভিসের আওতায় ৫টি প্রাইজবন্ড ফ্রিতে এন্ট্রি করা যায়। ৫টির বেশি হলে সার্ভিস চার্জ প্রযোজ্য হয়। এখন কথা হল কোন প্যাকেজ সাবস্ক্রাইব করার পর ফ্রি প্যাকেজটির কি হয়?
    কোন একটি প্যাকেজ সাবস্ক্রাইব করার পর ফ্রি প্যাকেজের আর অস্তিত্ব থাকে না। অর্থাৎ প্যাকেজ ডিজাইন করার সময় ফ্রি প্যাকেজের ৫টি বিভিন্ন প্যাকেজের সাথে সংযুক্ত করে দেয়া হয়েছে।
    উদাহরণ ঃ
    মিনি প্যাকেজ ঃ (৫+১০)=১৫টি
    অতি সাধারণ প্যাকেজ ঃ (৫+৩০)=৩৫টি
    সাধারণ প্যাকেজ ঃ (৫+৫৫)=৬০টি
    ব্রোঞ্জ প্যাকেজ ঃ (৫+৯৫)=১০০টি